বিল পরিশোধ না করলে সংযোগ বিচ্ছিন্ন, পল্লীবিদ্যুতের মাইকিং

করোনাভাইরাসের ঝুঁকি এড়াতে দেশে সাধারণ ছুটি চলাকালে এবার বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে মাইকিং করা হচ্ছে পল্লীবিদ্যুৎ সমিতির নাসিরনগর জোনাল অফিসের পক্ষ থেকে। বিল পরিশোধ না করলে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হবে বলেও হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। এ নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

স্থানীয়রা জানায়, এক সপ্তাহ ধরে নাসিরনগর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে পল্লীবিদ্যুৎ সমিতি নাসিরনগর জোনাল অফিসের পক্ষ থেকে বিল পরিশোধের জন্য অটোরিকশা করে মাইকিং করানো হচ্ছে। বলা হচ্ছে, বিল পরিশোধ না করলে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হবে। এরপর থেকেই চাপড়তলা ও গুনিয়াউক ইউনিয়নের শত শত গ্রাহক বিভিন্ন পয়েন্টে বিদ্যুৎ অফিসের লোকদের কাছে বিল পরিশোধ করছেন। সেখানে মানা হচ্ছে না সামাজিক দূরত্ব।

বিল সংগ্রহকারীদের সঙ্গে কথা হলে তারা বলেন, এটা অফিসের আদেশ। আমাদের কিছুই কারার নেই।

চাপড়তলা ইউনিয়নের বাসিন্দা হাসান জাহাঙ্গীর বলেন, সরকার বলছে করোনা সংক্রমণ এড়াতে ফেব্রুয়ারি, মার্চ এবং এপ্রিল এই তিনমাসে বিল পরিশোধের ক্ষেত্রে কোনও বিলম্ব মাশুল বা সারচার্জ দিতে হবে না। অথচ স্থানীয় পল্লীবিদ্যুৎ অফিস মাইকিং করে জনসমাগম ঘটিয়ে বিল পরিশোধ করতে বাধ্য করছে। এও বলা হচ্ছে, যে বিল পরিশোধ না করলে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হবে। 

একই অভিযোগ করেছেন উপজেলা সদর ইউনিয়নের গ্রাহক মো. আনু মিয়াসহ অনেকে। 

নাসিরনগর উপজেলা পল্লীবিদ্যুৎ অফিসের সহকারী জোনাল ম্যানেজার হিমেল কুমার বলেন, মাইকিং করা হচ্ছে এটা সত্য। তবে কাউকে বিল পরিশোধে বাধ্য বা সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হবে এমন কথা বলা হয়নি। 

নাসিরনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমা আশরাফী জানান, এ বিষয়ে খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here